[english_date], [bangla_time]

শিরোনাম:

ডেঙ্গু আক্রান্ত শিশু রোগীদের সেবায় শিশু-মাতৃ স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউট

গতকাল ডেঙ্গু আক্রান্ত শিশুদের দেখতে মাননীয় সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্জ্ব হাবিবুর রহমান মোল্লা শিশু-মাতৃ স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটে সরজমিনে পরিদর্শন করেন। পরিদর্শনের সময় সঙ্গে ছিলেন প্রতিষ্ঠানের নির্বাহী পরিচালক, অধ্যাপক ডা: এম. এ. মান্নান প্রতিষ্ঠানের সকল চিকিৎসক, সেবিকা, কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন এ সময় তিনি চিকিৎসক ও নার্সদের আক্রান্ত রোগীদের প্রতি বিশেষ যতœ নেবার অনুরোধ করেন এবং জনগণের সচেতনতার উপর গুরুত্ব আরোপ করেন। প্রতিষ্ঠানের নির্বাহী পরিচালক অধ্যাপক ডা: এম. এ. মান্নান বলেন ডেঙ্গুবাহী এডিস মশা কামড়ানোর ৪ থেকে ১০ দিনের মধ্যে রোগের সূচনা ঘটে, প্রচন্ড জ্বরের সাথে মাথাব্যাথা, চোখ ব্যাথা, হাড়ে ব্যাথা, পেশিতে ব্যাথা এ ছাড়াও পেটে ব্যাথ্যা হয়। অরুচি ও বমি বমি ভাগ হতে পারে। জ্বরের প্রথম তিন-চার দিনের মধ্যেই রক্তের কমপ্লিট ব্লাড কাউন্ট ও ডেঙ্গু এনএসওয়ান এ্যান্টিজেন পরীক্ষা করানো উচিত। ডেঙ্গু পজিটিভ হলে তাৎক্ষনিকভাবে আতংকিত না হয়ে চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া উচিত। এ সময় প্রচুর পানি ও তরল খাবার পান করতে হবে সেই সাথে পুষ্টিকর খাবার খাবেন। তবে অনেক বমি হওয়া ও বমির জন্য কিছু খেতে না পারা, অস্থিরতা ও অস্বাভাবিক আচরণ, তীব্র পেট ব্যাথা ইত্যাদির মতো উপসর্গ দেখা গেলে দ্রুত রোগীকে হাসপাতালে নিতে হবে।
নির্বাহী পরিচালক আরো জানান হাসপাতালে আগত ডেঙ্গু আক্রান্ত শিশু রোগীদের সকল প্রকার পরীক্ষা-নিরীক্ষার ব্যবস্থা সহ আক্রান্ত শিশুদের জন্য ৪০ বেডের ইউনিট চালু করা হয়েছে। আক্রান্তদের নিবিড় পরিচর্যার মাধ্যমে সুস্থ করার জন্য প্রতিষ্ঠানের সকল স্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছে।