[english_date], [bangla_time]

শিরোনাম:

মাজারে ফেলে রেখে যাওয়া সেই বৃদ্ধা হাসপাতালে

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার হাবিবুল্লানগর বাদলবাড়ী মাজার এলাকায় ফেলে রেখে যাওয়া সেই বৃদ্ধাকে হাসপাতালে ভর্তি করেছে স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন দি বার্ড সেফটি হাউসের কর্মীরা।

শুক্রবার (১১ অক্টোবর) দুপুরে তাকে সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এর আগে শনিবার (৫ অক্টোবর) দিনের কোনো এক সময় অসুস্থ ওই বৃদ্ধাকে (৭৫) গাড়িতে করে এনে হযরত শাহ হাবিবুল্লাহ (রহ.) মাজারের ভেতরে রেখে যায় তার সন্তানেরা। কিন্তু রাত হওয়ার পরও ওই বৃদ্ধাকে কেউ নিতে না আসায় এলাকাবাসী তাকে বাইরে একটি ঘরের বারান্দায় রেখে দেয়।

দি বার্ড সেফটি হাউসের চেয়ারম্যান মামুন বিশ্বাস বলেন, জানতে পেরে আমরা ঘটনাস্থলে যাই এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সঙ্গে কথা বলে মাজারের মোতওয়াল্লীর হেফাজতে রাখা হয়। সন্তানেরা গাড়িতে করে এনে মাজারে রেখে গেছে- এটুকু বলতে পারলেও নাম-পরিচয় বলতে পারছেন না। দুপুরে তাকে শাহজাদপুর থেকে অ্যাম্বুলেন্সযোগে সিরাজগঞ্জ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়েছে।

সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. রোকনুদ্দিন বলেন, বৃদ্ধার চিকিৎসা শুরু হয়েছে। শারীরিক অবস্থা নিয়ে তেমন শঙ্কার কিছু নেই।  তারপরও কিছু পরীক্ষা-নীরিক্ষা দেওয়া হয়েছে। তবে বয়সের ভারে ন্যুব্জ এ বৃদ্ধা মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলেছেন বলে জানান তিনি।

এ বিষয়ে শাহজাদপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) নাজমুল হোসাইন খান বাংলানিউজকে জানান, অসুস্থ্য বৃদ্ধাকে মাজারে ফেলে রাখা হয়েছে বলে আমরা জানতে পেরেছি। তার পরিচয় জানতে পরিবারের সন্ধান বের করার চেষ্টা করা হচ্ছে। যদি স্বজনদের সন্ধান না পাওয়া যায় তবে তাকে সুস্থ্য করে বৃদ্ধাশ্রমে পাঠিয়ে দেওয়া হবে।